মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৬:১৬ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
NEWSS24 অনলাইন সংবাদ পত্রে আপনাকে স্বাগতম । বিজ্ঞাপনের জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন  । ধন্যবাদ

এসএসসি ও সমমানের প্রশ্ন নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া শিক্ষার্থীদের

ডেস্ক রিপোর্ট
আপডেটের সময় : রবিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২১

Spread the love

 

 

অবশেষে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলো। যদিও সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে হয়েছে পরীক্ষা। কেউ পরীক্ষা ভালো দিয়েছে, আবার কেউ সন্তুষ্ট নয়।

করোনার কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ভিন্ন আঙ্গিকে অনুষ্ঠিত পরীক্ষা নিয়ে দেখা দিয়েছে শিক্ষার্থীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

রোববার (১৪ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনে দেখা যায়, পরীক্ষা শেষ করে একে একে বের হয়ে আসছেন শিক্ষার্থীরা।

এসময় দিলুরোড প্রভাতি উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ১২টা এমসিকিউ (নৈর্ব্যক্তিক) ছিল। খুবই কঠিন। আমার জীবনে কোনো পরীক্ষায় এতো কঠিন এমসিকিউ আসেনি। এতোদিন পর পরীক্ষা হলো, করোনার কারণে মানসিকভাবে কিছুটা চাপে ছিলাম, সেই জায়গা থেকে উচিত ছিল আমাদের সঙ্গে আরেকটু সহানুভূতিশীল ব্যবহার করা। আমাদের ক্লাসের অনেকেই এমসিকিউ টিক দিতে পারেনি।

মানিকনগর ক্রিয়েটিভ স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক শিক্ষার্থী জানায়, পরীক্ষা খুব ভালো হয়নি, আবার খারাপও হয়নি। মোটামুটি হয়েছে। আগের তুলনায় সময়টা দেওয়া হয়েছে কম। শিক্ষকদের উচিত ছিল আমাদের আরেকটু সময় দেওয়া।

মেট্রোপলিটন ক্রিয়েটিভ স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক শিক্ষার্থী জানায়, প্রশ্ন মোটামুটি সহজ ছিল, কিন্তু খাতা একটু দেরিতে দিয়েছে। এছাড়া পরীক্ষা হয়েছে অনেক দিন পর। এ নিয়ে একটু দুশ্চিন্তায় ছিলাম। তবে ভালোই দিয়েছি পরীক্ষা।

২৫ এমসিকিউর মধ্যে ১২টা দিতে হবে এরকম সুযোগ আর নাও আসতে পারে মন্তব্য করে শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনি উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী জানায়, এমন সুযোগ আর পাবো বলে মনে হয় না। সুযোগটা কাজে লাগিয়েছি।

ইস্পাহানী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক শিক্ষার্থী জানায়, পরীক্ষা ভালো হয়েছে। নতুন পদ্ধতিতে পরীক্ষা দিয়েছি, তাই একটু চিন্তিত ছিলাম। তবে ভালো দিয়েছি।

একাধিক অভিভাবক জানান, অনেক দিন বন্ধ ছিল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ক্লাস হয়নি। সেই জায়গা থেকে প্রস্তুতিটা মোটামুটিভাবে নিতে পেরেছিল শিক্ষার্থীরা।

প্রতিবছর ফেব্রুয়ারি মাসে এসএসসি পরীক্ষা হয়ে থাকে। কিন্তু করোনার কারণে দেড় বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। এ কারণে ফেব্রুয়ারির পরীক্ষা গড়িয়েছে নভেম্বরে।

এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে ২২ লাখ ২৭ হাজার ১১৩ জন পরীক্ষার্থী। বাংলাদেশ ছাড়াও আটটি দেশে ৪২৯ জন শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেবে।


আপনার মতামত লিখুন :    
এ জাতীয় আরো সংবাদ